শান্তির বার্তা পাক প্রধানমন্ত্রীর মুখে মানায় না: স্নেহা দুবে

398
  |  শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১ |  ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

জাতিসংঘে কাশ্মীর ও সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানকে তুলোধুনো করলেন ভারতের ফার্স্ট সেক্রেটারি স্নেহা দুবে। ইমরান খানের ভাষণের পর ‘রাইট টু রিপ্লে’তে জবাব দেন ভারতের প্রতিনিধি।

তিনি বলেন, জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল, আছে এবং থাকবে।

Advertisement

শুক্রবার সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভারতের ফার্স্ট সেক্রেটারি বলেন, ‘যেসব সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে ভারত নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে তার মধ্যে সব থেকে বেশি সংগঠন পাকিস্তানের মাটি থেকেই নাশকতা চালানো হয়। জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদার নেতা ওসামা বিন লাদেনকেও তারা আশ্রয় দিয়েছিল। পাক সরকার তাকে শহীদের মর্যাদাও দেয়। তাই শান্তির বার্তা পাক প্রধানমন্ত্রীর মুখে মানায় না’।

পাকিস্তান নিজেদের উঠানে সন্ত্রাসীদের লালন পালন করছে উল্লেখ করে স্নেহা দুবে আরও বলেন, ইসলামাবাদের এমন নীতির কারণে ভারতসহ গোটা বিশ্ব ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। পাকিস্তানে রাষ্ট্রীয় মদতপুষ্ট সন্ত্রাসের কারণে শিখ, হিন্দু, খ্রিস্টানদের মতো সংখ্যালঘুদের ভয়ে বাঁচতে হয়। আরও একবার বলছি, জম্মু কাশ্মীর ও লাদাখ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ ছিল, আছে, থাকবে। এর মধ্যে পাকিস্তানের বেআইনিভাবে দখল করা ভূখণ্ডও আছে।

তার আগে জাতিসংঘে এক ভিডিও বার্তায় কাশ্মীরের বিরোধ মেটাতে এবং ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সংঘাত নিরসনে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান ইমরান খান। এছাড়া ভারতের সামরিক গঠন, উন্নত পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির মাধ্যমে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এদিকে আজ শনিবার জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

Advertisement