দলীয় বিবেচনায় সরকারি বরাদ্দের অভিযোগ: দুর্নীতি মামলার মুখোমুখি হচ্ছেন বরিস জনসন

393
  |  বুধবার, আগস্ট ২৫, ২০২১ |  ১২:১৭ অপরাহ্ণ


ব্রিটেনের স্থানীয় উন্নয়ন তহবিলের অর্থ ‘রাজনৈতিক সুবিধা পাওয়ার জন্য’ ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির (টোরি) আসনে বরাদ্দের অভিযোগে দুর্নীতি মামলার মুখোমুখি হচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

Advertisement

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইনডিপেনডেন্টের এক প্রতিবেদন বলা হয়েছে, হাই কোর্ট ‘গুড ল প্রজেক্ট’ নামে একটি সংগঠনের করা ওই মামলা শুনানির জন্য গ্রহণ করেছে।

‘কনজারভেটিভ পার্টির স্বার্থসংশ্লিষ্ট এলাকায়’ সরকারের ওই ‘লেভেলিং আপ’ তহবিলের ৪৮০ কোটি পাউন্ড বরাদ্দে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সিদ্ধান্ত ‘বেআইনি’ ছিল কি না, তা এখন পরীক্ষা করে দেখবে হাই কোর্ট।

কনজারভেটিভ পার্টির এমপি ঋষি সুনাক, রবার্ট জেনরিক এবং গ্রান্ট শ্যাপসকে এ মামলায় বিবাদী করা হয়েছে। সরকারের কথিত ওই ‘লেভেলিং আপ’ কর্মসূচি আইনসিদ্ধ ছিল কি না, তাও এ মামলার বিচারে দেখা হবে।

সুনাক ও জেনরিকের নির্বাচনী এলাকা লিফি মার্কেট টাউনও সরকারের ওই তহবিলের অর্থ পেয়েছিল। যে প্রক্রিয়ায় ওই বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তাকে ‘অস্বাভাবিক’ বলছেন সমালোচকরা।

এ বিষয়ে ব্রিটেনের ‘ন্যাশনাল অডিট অফিস’ এর একটি নিরীক্ষা প্রতিবেদনের কথা বলছেন মামলাকারী আইনজীবীরা।  যেসব এলাকায় ‘লেভেলিং আপ’ তহবিলের বরাদ্দ করা হয়েছে, কেন সেসব এলাকা বেছে নেওয়া হল, সে সম্পর্কিত যথেষ্ট তথ্য উপাত্ত সেখানে দেওয়া হয়নি বলে ওই নিরীক্ষা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

হাউজ অব কমন্সের সর্বদলীয় পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটিও বলেছে, ‘স্বচ্ছতার অভাবের কারণে’ ওই তহবিলের অর্থ বরাদ্দে রাজনৈতিক পক্ষপাতের আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে।

ইনডিপেনডেন্টের প্রতিবেদন বলা হয়েছে, ‘লেভেলিং আপ ফান্ড’ এর আওতায় অনুমোদন পাওয়া প্রথম ৪৫টি স্কিমের মধ্যে যে ৪০টি গত মার্চে অনুমোদন করা হয়েছিল, তার মধ্যে অন্তত একটি কনজারভেটিভ এমপির আসন রয়েছে।

‘গুড ল প্রজেক্ট’ এর প্রতিষ্ঠাতা ব্যারিস্টার জলিয়েন মোম বলেন, “আপনি যদি এটা বিশ্বাস করেন যে স্থানীয় টোরি এমপিরা কাকতালীয়ভাবে লাভবান হয়েছে, তাহলে সেটা হবে বোকামি। টোরি এমপিরা জনগণের অর্থ যাতে দলীয় স্বার্থে খরচ করতে না পারে সে জন্যই মামলা করেছে গুড ল প্রজেক্ট।”

নিজেদের অভিযোগের সমর্থনে ন্যাশনাল অডিট অফিসের নিরীক্ষা প্রতিবেদনের পাশাপাশি ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ক্রিস হ্যানরেটির একটি লিখিত বক্তব্যও তুলে ধরছে গুড ল প্রজেক্ট।

সরকারের ‘লেভেলিং আপ’ তহবিলের মূল পরিকল্পনা দেখার সুযোগ পাওয়া হ্যানরেটি লিখেছেন, “মন্ত্রণালয় যেভাবে তথ্য সাজিয়েছে এবং ন্যাশনাল অডিট অফিস যেভাবে তা প্রকাশ করেছে, সেখানেই যথেষ্ট প্রমাণ আছে যে, মন্ত্রীরা সেসব আসনকেই বরাদ্দের জন্য বেছে নিয়েছে, যেগুলোতে দিলে ওয়েস্টমিনস্টারে কনজারভেটিভদের সুবিধা হয়।”

ইনডিপেনডেন্ট লিখেছে, পক্ষপাতের অভিযোগের বিষয়ে ব্রিটিশ সরকারের গৃহায়ন ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ৪৮০ কোটি পাউন্ডের ওই তলবিল গ্রেট ব্রিটেনের সব এলাকার জন্যই উন্মুক্ত। কোনো প্রক্রিয়ায় কীভাবে কোথায় বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে, তা প্রকাশিতও হয়েছে। যেসব এলাকায় বেশি দরকার, সেই এলাকায় আগে বরাদ্দ দেওয়ায়ই এর লক্ষ্য।

তবে মামলার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি ওই মুখপাত্র।

ইউআর/

Advertisement