বর্ণবাদ ঠেকাতে কমিশন গঠনের ঘোষণা বরিসের

800
  |  মঙ্গলবার, জুন ১৬, ২০২০ |  ১২:৫৭ অপরাহ্ণ

যুক্তরাষ্ট্রে নিরস্ত্র অবস্থায় পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড নিহত হবার পর বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে বিশ্ব জুড়ে।এখনো যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ শীর্ষক কর্মসূচি পালিত হচ্ছে এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে।যুক্তরাজ্যেও গত কয়েক দিন ধরে ব্যাপক বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে, যেখানে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।এরই পরিপ্রেক্ষিতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সব ধরনের বর্ণবৈষম্য খতিয়ে দেখতে কমিশন গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন।

গতকাল সোমবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম টেলিগ্রাফ পত্রিকায় লেখা এক প্রবন্ধে জনসন বলেন, বর্ণবৈষম্য ঠেকাতে আমাদের অনেক কিছু করা প্রয়োজন। যদিও এক্ষেত্রে অনেক অগ্রগতি হয়েছে।গত ২৫ মে যুক্তরাষ্ট্রে মিনিয়েপোলিসে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার ঘটনায় বিক্ষোভ শুরু হয়। হত্যাকাণ্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে বিক্ষোভ তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে তা ছড়িয়ে পড়ে বিশ্ব জুড়ে। জনসন তার লেখায় বলেন, বেকারত্ব, স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ জীবনের সবক্ষেত্রে সব ধরনের বৈষম্য খতিয়ে দেখতে এখনই সময় আন্তঃ সরকারি কমিশন গঠন করার।

Advertisement

তিনি আরো বলেন, প্রতীকী নয়, আমাদের দরকার সমস্যার মূলে পরিবর্তন করা। এদিকে বিক্ষোভকারীরা নির্দিষ্ট কয়েক জন ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্বের ভাস্কর্য সরিয়ে ফেলার আহ্বান জানিয়েছেন। কারণ এসব ব্যক্তিত্ব বর্ণবাদী ছিলেন বলে তারা মনে করছেন।এ প্রসঙ্গে জনসন জোর দিয়ে বলেন, ওয়েস্টমিনিস্টারে পার্লামেন্টের সামনে থাকা যুদ্ধকালীন নেতা উইন্সটন চার্চিলের ব্রোঞ্জমূর্তি সেখানেই থাকবে।তিনি বলেন, অতীত পুনর্লিখনের দায়িত্ব না নিয়ে আমাদের বর্তমানকে শোধরানো দরকার। ভাস্কর্য সরিয়ে ফেলার পরিবর্তে বর্তমান প্রজন্ম দ্বারা আরো লোক গড়ে তোলা দরকার, যারা স্মরণীয় হিসেবে বিবেচিত হবেন।

Advertisement