আরসিবির ব্যাটিং দুর্দাশা চলছেই, ম্যাচ জিতল পুনে

0

বিষয়টা এমন নয় যে, আগে ব্যাট করতে নেমে রানের পাহাড় গড়েছিল স্টিভেন স্মিথের দল রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট। ঘরের মাঠে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান তুলেছিল। এ যুগের আইপিএলের জন্য এটা কোনো রানই না। যে দলে কোহলি কিংবা ভিলিয়ার্সদের মত ব্যাটসম্যান আছে তাদের কাছে কোনো ব্যাপারই না। কিন্তু এ কী হলো বেঙ্গালুরুর। ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে তারা তুলতে পারল মাত্র ৯৬ রান! আরসিবির ব্যাটিং দুর্দশার দিনে ৬১ রানের বড় জয় পেল ধোনিদের পুনে।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ১৮ রানেই প্রথম উইকেট হারিয়েছিল পুনে। ৬ রান করে আউট হয়ছিলেন আজিঙ্কা রাহানে। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটেই ৪০ রানের জুটি গড়েন রবিন ত্রিপাঠি আর অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। ত্রিপাঠি ৩৭ রান করে আউট হওয়ার পর দলকে এগিয়ে নিয়ে যান স্মিথ। মনোজ তিওয়ারির সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে ৫০ রানের জুটি গড়েন তিনি। অবশেষে ৩২ বলে ৫ চার ১ ছক্কায় ৪৫ রান করে থামেন স্মিথ। তিওয়ারির ৩৫ বলে ৪৪* আর ধোনির ১৭ বলে ২১* রানের সুবাদে দেড়শ ছাড়ায় পুনের রান।

এই রানই যেন হিমালয় হয়ে দাঁড়ায় বেঙ্গালুরুর সামনে। ১১ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি আরসিবি। আরও পরিস্কার করে বললে একমাত্র অধিনায়ক বিরাট কোহলি ছাড়া আর কোনো খেলোয়াড় দুই অংকে পৌঁছতে পারেনি! একা লড়াই করে ৪৮ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ১ ওভার বাউন্ডারিতে ৫৫ রান করেন কোহলি। বাকীদের রান যথাক্রমে ২, ৩, ৭, ২, ১, ৩, ৫, ২, ৮ এবং ৪। এমন নয় যে কোনো বোলার হঠাৎ করে বিধ্বংসী হয়ে উঠেছিলেন। ইমরান তাহির সর্বোচ্চ ৩টি আর ফার্গুসন নেন ২ উইকেট। একটি রান আউট ছাড়া বাকী ৩ উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন ৩ বোলার। এই হারের মধ্যদিয়ে কোহলিরা মূলত টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে গেল। ইএসপিএন ক্রিকইনফো।

Share.

Leave A Reply