খুব শিগগির বাংলাদেশে পেপালের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে

0

ঝামেলামুক্ত ইলেক্ট্রনিক মানি ট্রান্সফারের পথ সুগম করতে এবং কনজিউমারের প্রবেশ বৃদ্ধি ও দেশের ফ্রি লাঞ্চারের অর্থ সংগ্রহের জন্য বিশ্বব্যাপী অনলাইন পেমেন্ট ব্যবস্থা পেপাল খুব শিগগির বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম শুরু করবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ের মন্ত্রিসভা কক্ষে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান, আজকের মন্ত্রিসভা বৈঠকে বাংলাদেশে পেপল সাভির্স চালুর গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করা হয়।

তিনি বলেন, আইসিটি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক গত ২২ থেকে ২৪ মার্চ জামার্নীতে, ২৯ থেকে ৩১ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রে এবং ২ থেকে ৪ এপ্রিল আর্জেন্টিনায় সফর করেন এবং এ সময় তিনি গুগল, ফেসবুক ও পেপল এর উচ্চ পদস্থ নির্বাহীদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

শফিউল আলম পেপাল এর সঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর বৈঠকের ফলাফল সম্পর্কে উল্লেখ করে বলেন, পেপল খুব শিগগির বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম শুরু করবে।

১৯৯৮ সালে ডিসেম্বরে পেপাল চালুর পর থেকে ইতোমধ্যেই প্রায় ২০ কোটি একক ও ব্যবসায়িক পেমেন্ট ইলেক্ট্রনিকেলি ফান্ড ট্রান্সফার হয়েছে।

সারাবিশ্বে প্রায় দুই শতাধিক মার্কেটে পেপল সুবিধা রয়েছে। অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা শতাধিক মুদ্রায় তাদের বিল পেয়েছে। ৫৬টি মুদ্রায় তহবিল তুলেছে। ২৫টি মুদ্রায় অ্যাকাউন্টস ব্যালেন্স স্থগিত করেছে।

Share.

Leave A Reply