জুলহাজ-তনয় হত্যায় ৬ আসামির মৃত্যুদণ্ড

262
  |  মঙ্গলবার, আগস্ট ৩১, ২০২১ |  ৭:৫৮ পূর্বাহ্ণ

ঢাকার কলাবাগানে সমকামীদের অধিকার বিষয়ক সাময়িকী ‘রূপবান’-এর সম্পাদক জুলহাজ মান্নান ও তার বন্ধু নাট্যকর্মী মাহবুব তনয়কে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় চাকরিচ্যুত মেজর সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ওরফে জিয়াসহ ছয় আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া মামলাটির বাকি দুই আসামি খালাস পেয়েছেন।

Advertisement

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমানের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মেজর সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ওরফে জিয়া, আকরাম হোসেন, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন, আরাফাত রহমান, শেখ আব্দুল্লাহ ও আসাদুল্লাহ। এদের মধ্যে জিয়া ও আকরাম পলাতক। বাকিদের আজ আদালতে হাজির করা হয়েছিল।

খালাস প্রাপ্তরা হলেন সাব্বিরুল হক চৌধুরী ও মওলানা জুনায়েদ আহম্মেদ। এই দুজনও পলাতক ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি ছয় আসামির ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য হওয়ায় আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

এর আগে আজ সকাল ৯টায় কাশেমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে চার আসামিকে আদালতের হাজত খানায় আনা হয়। এর পর ১১টা ২৭ মিনিটে তাদের আদালতে হাজির করে। দুপুর ১২টা ৮ মিনিটে বিচারক রায় পড়া শুরু করেন। পলাতক চার আসামি ছাড়া বাকি চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সোমবার (২৩ আগস্ট)মামলাটির যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হওয়ায় ঢাকার সন্ত্রাস বিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমানের আদালত রায়ের জন্য এই তারিখ ধার্য করেন।মামলায় বিভিন্ন সময়ে ২৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত।

এর আগে ২০১৯ সালের ১২ মে জিয়াসহ আটজনের বিরুদ্ধে কলাবাগান থানায় দায়ের করা মামলায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক মুহম্মদ মনিরুল ইসলাম।এরপর ২০২০ সালের ১১ নভেম্বর মামলাটির চার্জগঠন করে বিচারের জন্য আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২৫ এপ্রিল রাজধানীর কলাবাগানের লেক সার্কাস রোডের বাড়িতে ঢুকে জুলহাজ মান্নান ও মাহবুব তনয়কে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় কলাবাগান থানায় জুলহাজের বড় ভাই মিনহাজ মান্নান ইমন হত্যা মামলা এবং সংশ্লিষ্ট থানার এসআই মোহাম্মদ শামীম অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেন।

ইউআর/

Advertisement