লন্ডনে লকডাউন চলাকালীন ৯৭৩ জনকে জরিমানা, শীর্ষে বার্কিং- ডেগেনহ্যাম ও রেডব্রিজ এলাকা

472
  |  বুধবার, জুন ৩, ২০২০ |  ৬:৪১ অপরাহ্ণ

লন্ডন করোনা ভাইরাসের ফলে আরোপিত লকডাউন অমান্য করায় ২৭ মার্চ থেকে ১৪ মে পর্যন্ত ৯৭৩ জনকে জরিমানা করা হয়েছে।
লকডাউনের নিয়ম উপেক্ষা করে লন্ডনের যেসব স্থানে সবচেয়ে বেশী আইন অমান্য করা হয়েছে এবং এর ফলে যেসব অঞ্চলকে সর্বাধিক জরিমানার ঘটনা ঘটেছে সেসব স্থানের তালিকা প্রকাশ করেছে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড।

স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের প্রকাশিত তথ্যে জানা যায়, পশ্চিম লন্ডন, হিলিংডন, ইলিং এবং হানস্লো প্রান্তের এলাকাগুলোতে প্রায় ১৬৫ জনকে জরিমানা করা হয়েছিল , যা লন্ডনের যে কোনও এলাকা থেকে বেশী।

Advertisement

১২৫টি জরিমানার ঘটনা নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে বার্কিং এবং ডেগেনহ্যাম, হ্যাভারিং এবং রেডব্রিজ এলাকা।

উত্তর পশ্চিমের বার্নেট, হ্যারো এবং ব্রেন্ট এলাকায় হয়েছে সবচেয়ে কম জরিমানার ঘটনা। যা ছিল -মাত্র ২৯ জন।

এ প্রসঙ্গে সহকারী কমিশনার মার্ক সিমনস বলেন ” আমাদের লক্ষ্য লন্ডনকে রক্ষা করা এবং ফিক্সড পেলেন্টিই ছিলো যথেষ্ট যার ফলে কাউকে গ্রেফতার করোর প্রয়োজন পড়েনি।”

তিনি আশা করেন, লন্ডনবাসী এটা বুঝতে সমর্থ হবেন যে কোভিড-১৯ এর প্রকোপ কমাতে ততটুকুই আইনের প্রয়োগ করা হয়েছে, যতটুকু না করলেই নয়। তিনি আরো বলেন, তারা খুবই সীমিত সংখ্যক মানুষকে গ্রেফতার দেখিয়েছি এবং অপরাধের পুনরাবৃত্তি খুব একটা দেখিনি যা প্রমান করে কোভিড-১৯ নিয়ে আমাদের কার্যক্রম সঠিক ছিলো।

প্রকাশিত তথ্য বলছে, জরিমানার মুখে যারা পড়েছেন তাদের বেশীর ভাগই শ্বেতাঙ্গ এবং এদের ৬৭৯ জন পুরুষ এবং তাদের বয়স ১৮ থেকে ৩৫ এর মধ্যে। এপ্রিলের ১২ তারিখে ইস্টার সানডের দিন লন্ডনে ৫৪টি জরিমানার ঘটনা ঘটেছে যা একদিনে সর্বোচ্চ।

এই নিয়ম ভাঙ্গার প্রবণতা এপ্রিলের মাঝামিঝেত কমে এসেছে বলে দেখাচ্ছে পরিসংখ্যানটি।

Advertisement