পাসপোর্ট জালিয়াতির মাধ্যমে আদম পাচার চক্রের হোতা জাতীয় পার্টির এমপি ইয়াহিয়া!

0

ডেস্ক রিপোর্ট : পাসপোর্ট জালিয়াতি করে মন্ত্রী ও এমপির ছেলে এবং পিএস বানিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে লোক পাঠাচ্ছে পরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় কেন্দ্রীক একটি দালাল চক্র। ফলে এই চক্রটি অদৃশ্য ক্ষমতার বলে অবৈধভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা।

আর এই দালাল চক্রের মূল হোতা সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ইয়াহিয়া চৌধুরী – এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে।

এই বিষয় নিয়ে  ইতোমধ্যে বেসরকারি টিভি চ্যানেল এটি এন বাংলা সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ইয়াহিয়া চৌধুরীর বিরুদ্ধে নজির বিহীন জালিয়াতির অভিযোগের খবর প্রকাশ করে।  আর তা পুরো সিলেটে টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়।

রিপোর্টে বলা হয় গত ৬ অক্টোবর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ইমিগ্রেশন ও সকল জায়গাতেই পাসপোর্ট জালিয়াতি করে সাত ব্যক্তি ঢাকা বিমান বন্দর হয়ে জাপান চলে যায়। তাদের সাথে জাপানে যান সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ইয়াহিয়া চৌধুরী ও আরো ৪জন সংসদ সদস্য।

পাসপোর্টে তাদের ছেলের নাম বসিয়ে ও ভুয়া পাসপোর্ট করে ভিসার আবেদন করা হয়। পরে ভিসা পেয়ে তারা চলে যায় জাপানে। নজিরবিহীন এ জালিয়াতির ঘটনা উঠে এসেছে ঐ গণমাধ্যমের অনুসন্ধানে। এ ঘটনায় সিলেটের রাজনৈতিক মহলসহ সর্বত্র শুরু হয়েছে তোলপাড়।

এ বিষয়ে ইয়াহিয়া চৌধুরীর সিলেটের একটি অনলাইন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন,  এটিএন বাংলায় সংবাদটি দেখার আমি ও আরো কয়েকজন এমপি পরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের ঐ প্রতারককে আটক করেছি। আটকের পর সে স্বীকার করেছে, এ পর্যন্ত বিভিন্ন মন্ত্রী ও এমপির নামে পিএস ও ছেলে সন্তানের নামে ভ’য়া পাসপোর্ট তৈরী করে অনেক মানুষকে বিভিন্ন দেশে প্রেরণ করেছে।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, এই আদমপাচারের বিষয়ে সব কিছুই জানতেন  ইয়াহিয়া চৌধুরী। আর তাই যাতে ইমিগ্রেশন অতিক্রম করতে কোন প্রকার ঝামেলা না হওয়ার জন্যই নিজেই কোন প্রকার সরকারী কিংবা নির্ধারিত সফর ছাড়াই জাপান যান।

Share.

Leave A Reply