ক্ষমতাসীনদের হঠাতে ‘জোর’ করতে হবে: মির্জা ফখরুল

0

নিউজ ডেস্কঃ  জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট মুগাবের পতনের প্রসঙ্গ টেনে বাংলাদেশে ‘জগদ্দল পাথরের’ মতো ক্ষমতায় বসে থাকা ক্ষমতাসীনদের হঠাতে ‘জোর’ করতে হবে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার বিকালে এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এ মন্তব্য করেন।তিনি বলেন, জিম্বাবুয়ের স্বৈরাচার মুগাবে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছে। সেই খবর পত্রিকায় ছোট্ট। কারণ এই যে স্বৈরাচার যারা জাতির বুকে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসে আছে এই খবর দিলে সিংহাসন…। সুতরাং এই খবর বড় করে দেয়া যাবে না।ক্ষমতাসীনদের  জগদ্দল পাথর উল্লেখ ফখরুল বলেন, এই জগদ্দল পাথরকে সরাতে না পারলে, আমাদের জাতীয় অস্তিত্ব থাকবে না। আমরা একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হব। আমাদের রাষ্ট্র থাকবে, পতাকা থাকবে, আমাদের কোনো অস্তিত্ব থাকবে না, স্বাধীনতা থাকবে না।

তিনি বলেন, স্বাভাবিক সাধারণ পদ্ধতিতে আমরা এই পাথর সরাতে পারব- তা মনে হয় না। একে সরাতে হলে লোহার হাতুড়ি লাগবে। জোর করে তাদের সরাতে হবে। তাছাড়া এমনিতে যাবে না।এজন্য ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।তিনি বলেন, আমি বারবার অনুরোধ করছি, আবারও করছি সত্যিকার অর্থে যদি আমাদের জাতির স্বাধীনতা আমরা চাই, আমরা মানুষের মুক্তি চাই, আমরা অধিকার ফিরে পেতে চাই, তাহলে আমাদের আজকে জেগে উঠতে হবে।

ছাত্রছাত্রীদের ফখরুল বলেন, জেগে উঠবেন আপনারা। আমরা বয়োঃবৃদ্ধ, আমরা বৃদ্ধ, আমরা কথা বলতে পারি কিন্তু কাজের সেই শক্তি আমাদের নেই।মনীষীরা বলেছেন, পুট দ্যা ওয়েজ এ ইয়াং সোলজার। সেই ইয়াং সোলজার আমাদের দরকার। আপনারা এগিয়ে আসুন, সংগঠিত হোন, সব বাঁধা সরে যাবে।রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিন উপলক্ষে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জন্মদিনে অনুষ্ঠানস্থল বর্ণিল সাজে সাজানো হয়।

২০ নভেম্বর ছিল তারেকের ৫৩তম জন্মদিন।দেশের বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এরা (সরকার) দেশকে একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার ষড়যন্ত্র করছে এবং সেটা প্রায় করে নিয়ে এসেছে। গণতন্ত্রের স্তম্ভগুলোকে ভেঙে দিয়েছে। সংসদ নাই। নির্বাচিত প্রতিনিধি নাই। গৃহপালিত বিরোধী দল রেখেছে, যা সংসদে আনে- তা পাস করে দেয়।

তিনি আরও বলেন, প্রশাসন সম্পূর্ণ দলীয়করণ করেছে। গণমাধ্যম এখানে মিডিয়ার ভাইয়েরা আছেন। প্রতিদিন টেলিফোন টেলিফোন- কোনটা যাবে, কোনটা যাবে না, কোনটা লেখা হবে, কোনটা লেখা হবে না। কোনটা গুরুত্ব পাবে, কোনটা পাবে না- তা পর্যন্ত বলে দেয় সরকার।

বিএনপি নেতা আরও বলেন, আজকের পত্রিকায় দেখবেন বিরাট খবর কিন্তু পত্রিকায় নিউজ ছোট্ট। কী খবর জিম্বাবুয়ের মুগাবের পতন। সেই নিউজ ছোট্ট।সদ্য পদত্যাগকারী প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার ওপর সরকারের ভূমিকার চিত্র তুলে ধরেন ফখরুল।তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি তাকে দেশ থেকে এক মাসের ছুটিতে পাঠানো হলো জোর করে। সেই নাটক কী হয়েছে আমরা সবাই জানি এবং তাকে বিদেশে বাধ্য করা হলো- আপনি পদত্যাগ করেন। কোথায় যাবেন?
সরকার বিরোধী দলের ওপর নিপীড়ন-নির্যাতন ও ‘গুম-হত্যা’ করে ক্ষমতায় টিকে আছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হলে সরকার পরিবর্তন করতে হবে। আমরা যদি এই সংগ্রামে জয়ী হতে পারি, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে পারি, জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে পারি। তাহলেই তারেক রহমান দেশে আসবেন, অন্যথায় নয়।লন্ডনে অবস্থানরত দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সরকার পরিবর্তন করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসানের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় ছাত্রদলের সাবেক নেতা শামসুজ্জামান দুদু, আমানউল্লাহ আমান, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, কামরুজ্জামান রতন, আজিজুল বারী হেলাল, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের মামুনুর রশীদ মামুন, এজমল হক পাইলট, নাজমুল হাসানসহ ছাত্র নেতারা বক্তব্য রাখেন।

Share.

Leave A Reply