বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বা বিপিএল নিয়ে জুয়া খেলার অভিযোগে ৭৭জনকে ধরা হয়েছে

0
293

স্পোর্টস ডেস্ক,ক্রিকেটঃ  বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) নিয়ে সারা দেশে চলছে ক্রিকেট জুয়া। মাঠে হচ্ছে খেলা আর মাঠের বাইরে সেই জুয়া নিয়ে ঘটছে সহিংস ঘটনাও। জুয়ার ফাঁদে পড়ে অনেক সাধারণ মানুষ হচ্ছে নিঃস্ব।বাংলাদেশে যেকোনো জুয়া বা বাজি ধরা নিষিদ্ধ। কিন্তু ক্রিকেটে জুয়া নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো আইন না থাকায় জুয়াড়িদের ধরেও কিছু করতে পারছে না বিসিবি।বিপিএলের এবারের আসরে স্টেডিয়াম থেকে ৭৭ জুয়াড়িকে ধরে পুলিশের কাছে তুলে দিয়েছে বিসিবির দুর্নীতি দমন ইউনিট। এই ৭৭ জনের মধ্যে ভারতীয় ১০ জন, দু’জন পাকিস্তানি এবং ৬৫ জন বাংলাদেশি।পাড়া-মহল্লায় বিপিএল নিয়ে জুয়ার হোলিখেলাই চলছে। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক বেটিংয়ে, যা অন্য দেশে বৈধ সেদিকেও ঝুঁকে পড়েছে দেশের অনেক মানুষ। ক্রিকেটপ্রেমী মানুষের অনেকেই লোভে পড়ে হয়ে যাচ্ছেন জুয়াড়ি।

অর্থ অপচয়, হানাহানির ঘটনাও ঘটছে।

এ ক্রিকেট জুয়া বন্ধে বিসিবির উদ্যোগ ও করণীয় প্রসেঙ্গ বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘বেটিং বা জুয়া বন্ধে সরাসরি কিছু করার নেই বিসিবির। তবে আমরা দর্শকদের সচেতন করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি। এছাড়া আমাদের নিজস্ব নিরাপত্তা দল স্টেডিয়াম এলাকায় যেকোনো ধরনের জুয়া প্রতিরোধে তৎপর রয়েছে। তাদের তৎপরতায় আমরা এখন পর্যন্ত ৭৭ জনকে স্টেডিয়াম থেকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছি।’

তিনি জানান, মাঠের খেলা টিভিতে সরাসরি সম্প্রচার করার সময় ৯ থেকে ১০ সেকেন্ডের একটি গ্যাপ তৈরি হয়। অর্থাৎ মাঠে একটি বল হয়ে যাওয়ার অন্তত নয় সেকেন্ড পর তা টিভিতে দেখা যায়। এ কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই জুয়ায় জড়িয়ে পড়েন অনেকে।মাঠের জুয়া নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করলেও মাঠের বাইরে তা করা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন ইসমাইল হায়দার। তিনি বলেন, ‘মাঠের বাইরে, পুরো দেশে তো আমরা জুয়া নিয়ন্ত্রণ করতে পারব না। এটি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাজ। আমরা মাঠের স্কোরবোর্ডে জুয়া নিয়ে সচেতনতামূলক কথা প্রচার করছি। এর বাইরে আমাদের আসলে খুব বেশি কিছু করার নেই।কিছুদিন আগে বিপিএলের খেলা নিয়ে জুয়ায় বাধা দেয়ায় খুন হয়েছেন এক তরুণ। এরপর থেকেই স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় জুয়া প্রতিরোধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে বিসিবি। তবে ক্রিকেট বাজির বড় একটি অংশ নিয়ন্ত্রিত হয় ইন্টারনেটভিত্তিক বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে, যা নিয়ন্ত্রণ করা সহজ নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here