শান্তিতে নোবেলজয়ী আইসিএএন’র সাতকাহন

0

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়ার চেষ্টায় চলতি বছর শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ক্যাম্পেইন টু অ্যাবোলিশ নিউক্লিয়ার উইপন- আইসিএএন।নরওয়ের নোবেল কমিটির চেয়ারম্যান বেরিত রেইস অ্যান্ডারসন শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে চলতি বছরের পুরস্কার ঘোষণা করে বলেন, পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার যে বিশ্বে ভয়াবহ মানবিক বির্যয় ডেকে আনবে, সে বিষয়ে মানুষকে সতর্ক করার পাশাপাশি এ ধরনের অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধে একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর উদ্যোগে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় আইসিএএন-কে নোবেল দেওয়া হচ্ছে।

“আমরা আজ এমন এক বিশ্বে বাস করছি, যেখানে পারমাণবিক অস্ত্রের ঝুঁকি বিগত বহু বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। কিছু রাষ্ট্র এখনও তাদের পারমাণবিক অস্ত্র উন্নত করে কাজ করছে। উত্তর কোরিয়ার মত আরও দেশ এ ধরনের অস্ত্রের মালিক হতে চাইবে- সে আশঙ্কাও রয়েছে।”

নোবেল কমিটি বলছে, এই পৃথিবীর বুকে মানুষ এবং সব ধরনের প্রাণের জন্যই পারমাণবিক অস্ত্র একটি হুমকি। আন্তর্জাতিক চুক্তির মাধ্যমে পৃথিবীর মানুষ এর আগে ল্যান্ড মাইন, ক্লাস্টার বোমা, রাসায়নিক ও জীবাণু অস্ত্রের ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে পেরেছে। কিন্তু তার চেয়ে আরও ভয়াবহ যে অস্ত্র, সেই পারমাণবিক বোমার ব্যবহার বন্ধে এখনও কোনো আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা দেওয়া সম্ভব হয়নি।

“ওই আইনি ঘাটতি পূরণ করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে আইসিএএন। পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার নিষিদ্ধ করার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ যুক্তি তারা সামনে এনেছে, আর তা হল- এ ধরনের অস্ত্র মানুষের যে অবর্ণনীয় দুর্দশার কারণ ঘটায়, তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।এ ধরনের অস্ত্রের ব্যবহার ধারাবাহিকভাবে বন্ধে পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশগুলোকে আলোচনায় আসার আহ্বান জানিয়েছেন নরওয়ের নোবেল কমিটির চেয়ারম্যান।পুরস্কার বাবদ একটি সোনার মেডেল ও ৮০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার (১২ লাখ ৫০ হাজার ডলার) পাবে আইসিএএন। আগামী ১০ ডিসেম্বর অসলোতে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার দেওয়া হবে।পাঁচ দশকের রক্তক্ষয়ী সংঘাতের অবসানে ফার্ক গেরিলাদের সঙ্গে শান্তি প্রতিষ্ঠার চেষ্টার স্বীকৃতি হিসেবে কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোসকে গতবছর নোবেল শান্তি পুরস্কার দেওয়া হয়।সুইডিশ বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের শেষ ইচ্ছা অনুসারে গবেষণা, উদ্ভাবন ও মানবতার কল্যাণে অবদানের জন্য প্রতি বছর চিকিৎসা, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন, সাহিত্য, শান্তি ও অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়।আগামী ৯ অক্টোবর অর্থনীতিতে এবারের নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।

Share.

Leave A Reply