ফের বিতর্কে শেন ওয়ার্ন!

0

ক্রিয়া ডেস্ক ::    কিছুদিন আলোচনায় ছিলেন না। কিন্তু তা কি আর শেন ওয়ার্নের সাথে যায়! অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার সদা বিতর্কে থাকতেই অভ্যস্ত। আর বিতর্কে না থাকলেও আলোচনায় কোনো না কোনো ভাবে তো থাকেনই।

তাই বলে পর্ন স্টারকে নিয়ে আলোচনায়! লন্ডনে এখন এই অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার আলোচনার তুঙ্গে পর্ন স্টারকে পিটিয়ে। নাইট ক্লাবে নাকি ওয়ার্ন মেরেছেন ৩০ বছর বয়সী পর্ন তারকা ভ্যালেরি ফক্সকে।

ফক্স নিজেই এই দাবি করেছেন। পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন ওয়ার্নের বিরুদ্ধে। শুক্রবার টুইট করেছেন নিজেরই একটি ছবি। যে ছবিতে ক্লোজ আপে দেখিয়েছেন অসি তারকার কারণে তার মুখে আঘাতের চিহ্ন তৈরি হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরাও বলছেন, ৪৮ বছরের ওয়ার্নের সামনে নাইট ক্লাবে তারা লুটিয়ে পড়তে দেখেছেন গ্ল্যামার মডেল ফক্সকে। তিনি মুখ চেপে ধরে পড়ে গিয়েছিলেন মেঝেতে। বিখ্যাত ট্যাবলয়েড দ্য সান জানাচ্ছে এই খবরই।

কিন্তু পুলিশ কি বলছে? সেন্ট্রাল লন্ডনের মেফেয়ারের ওই নাইট ক্লাবের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখছে তারা। ওখান দিয়েই তদন্ত শুরু হচ্ছে। কিন্তু ওই পর্ন স্টারের সাথে ওয়ার্নের কি সম্পর্ক? এখনো অবশ্য জানা যায়নি পার্টিতে ওয়ার্নের পার্টনার ছিলেন কি না ফক্স।

এটা তাদের ডেট ছিল কি না কিংবা তাদের এক সাথে রাত কাটানোর পরিকল্পনা ছিল কি না। ওয়ার্নের লন্ডন জীবনে নারী আসে নারী যায়। নারী নিয়ে কতো ঝামেলাতেই না কাটে মাঝে মাঝে তার।

মিডিয়ায় উঠে আসেন নিন্দনীয় সব খবর হয়ে। নিজের ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টে ওয়ার্নের কৃতকর্মের কথা তুলে ধরে ছবির সাথে ফক্স ক্যাপশন দিয়েছেন, ‘আর হ্যাঁ, আমি মোটেও মিথ্যে বলছি না।

তাই বলে নারীকে পেটাবেন? নিজেকে নিয়ে গর্বিত তো?’ পুলিশের কাছে নিজের অভিযোগের কার্ডও শেয়ার করেছেন তিনি। ডজনখানেক পর্ন মুভি করে বেশ জনপ্রিয়তা কামিয়েছেন ফক্স।একজন নারীর গায়ে হাত তোলার খবর প্রমাণিত হলে ওয়ার্নের টেলিভিশন ধারাভাষ্যকারের চুক্তিটা ঝুঁকির মুখেই পড়বে বলে ধারণা। 

ইউকেবিডি নিউজ / এসএ

 

Share.

Leave A Reply