রোহিঙ্গাদের বাড়িঘর এখনো পোড়ানো হচ্ছে : অ্যামনেস্টি

0

নিউজ ডেস্ক  ::      শুক্রবার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশালের ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে একথা বলা হয় যে , এখনো আরাকান প্রদেশে রোহিঙ্গাদের বাড়ি ঘর পোড়ানো হচ্ছে ।

গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে সেনা অভিযান শুরুর পর থেকে নির্যাতন ও হত্যাকাণ্ডের পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের বাড়ি-ঘর পুড়িয়ে দিচ্ছে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি বলেছিলেন, ৫ সেপ্টেম্বরের পর রাখাইনে সেনা অভিযান চলছে না।

জাতিসংঘে দেওয়া ভাষণে রাখাইনে পরিস্থিতি শান্ত হয়ে এসেছে বলে জানান মিয়ানমারের ভাইস প্রেসিডেন্ট হেনরি ভান থিও। সংস্থাটি এর আগে ২২ সেপ্টেম্বরের উপগ্রহ চিত্রেও রোহিঙ্গা গ্রামে জ্বালিয়ে দেওয়া ঘর থেকে ধোঁয়া ওড়ার কথা জানায়।

এখনো রোহিঙ্গাদের বাড়ি-ঘর পুড়িয়ে দেওয়া অং সান সু চির বক্তব্যের অসারতা তুলে ধরেছে বলে মন্তব্য করেছেন অ্যামনেস্টির ক্রাইসিস রেসপন্স পরিচালক তিরানা হাসান।

জাতিসংঘের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সহিংসতায় গত ২৫ আগস্টের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৪ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে বাংলাদেশ ঠাঁই নিয়েছে। প্রসঙ্গত, গত ২৪ আগস্ট রাখাইনে বেশ কয়েকটি তল্লাশিচৌকিতে কোনো এক বিদ্রোহী গোষ্ঠী হামলা চালায়।

এতে নিরাপত্তা বাহিনীর ১২ সদস্যসহ নিহত হন ৭০ জনের বেশি মানুষ। ওই হামলার জন্য ২৫ আগস্ট থেকে দেশটির সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা সম্প্রদায়কে দায়ী করে তাদের ওপর নির্বাচারে নির্যাতন ও হত্যা শুরু করে।

এরপর থেকেই রাখাইন ও আরাকান রাজ্য থেকে কক্সবাজারের টেকনাফসহ বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে নাফ নদী পার হয়ে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আসতে শুরু করে। সহিংসতায় এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছে প্রায় ৫ হাজার মানুষ।

ইউকেবিডি নিউজ / এসএ

Share.

Leave A Reply