পাকিস্তানের সন্ত্রাসী আস্তানায় হামলার হুমকি ইরানের

0

ইরান সম্প্রতি জানিয়েছে, তারা পাকিস্তানের অভ্যন্তরে সন্ত্রাসীদের আস্তানায় হামলা চালাবে। সোমবার ইরানের সশস্ত্র বাহিনী ইসলামাবাদকে এ হুমকি দেয়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ডন।
এর আগে ইরান-পাকিস্তান সীমান্তে সশস্ত্র বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এরপর সন্ত্রাসীরা পাকিস্তানে পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেছে ইরান।
ইরানের সামরিক বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ বাকেরি ইরনাকে বলেন, ‘আমরা এ পরিস্থিতি চলতে দিতে পারি না। আমরা আশা করি পাকিস্তানের কর্মকর্তারা সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ করবেন, সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করবেন এবং তাদের ঘাঁটি গুড়িয়ে দেবেন। ’
তিনি আরও বলেন, ‘সন্ত্রাসীরা যদি আক্রমণ পরিচালিত করতে থাকে তাহলে আমরা তাদের স্বর্গভূমি ও স্থাপনায় আঘাতকরব, তারা যেখানেই থাকুক না কেন। ’
গত সপ্তাহে ইরান-পাকিস্তান সীমান্তে সশস্ত্র বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘর্ষে অন্তত আট ইরানি সীমান্তরক্ষী নিহত হয়েছে বলে ইরানি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন আইআরআইবি-র ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে। ইরানের সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশের মিরজাভেহ শহরের কাছে ঘটা এ সংঘর্ষে আরো চার ইরানি সীমান্তরক্ষী আহত হয়েছে।
ইরানি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনগুলোতে ঘটনার জন্য জইশ আল-আদল জঙ্গিগোষ্ঠীকে দায়ী করা হয়েছে। এই গোষ্ঠীটির সঙ্গে আল কায়েদার সম্পর্ক আছে বলে অভিযোগ তেহরানের। গোষ্ঠীটি প্রায়ই সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে হামলা চালায়।
পাশাপাশি সশস্ত্র ডাকাত, দাগী অপরাধী ও মাদক চোরাচালানীরা প্রায় নিয়মিত ইরানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে নিরাপত্তা বাহিনী ও সীমান্তরক্ষীদের ওপর হামলা চালিয়ে থাকে। চলতি মাসের প্রথমদিকে সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে ইরানের ইসলামিক বিপ্লবী রক্ষী বাহিনীর (আইআরজিসি) এক কমান্ডাকে হত্যা করে দুই সন্ত্রাসী। পরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ওই দুই সন্ত্রাসী নিহত হয়। গত বছরের জুলাইয়ে পাকিস্তান সীমান্তের নিকটবর্তী এলাকায় আরো চার ইরানী সীমান্তরক্ষী নিহত হয়েছিল।

Share.

Leave A Reply

five × one =