খুলনায় বাবা-মেয়ে আত্মহত্যার ঘটনায় ২ মামলা

0

Law1452088112ন্যাশনাল ডেস্ক :: খুলনায় প্রতিবন্ধী মেয়ে সুমাইয়া আক্তার অরিনকে (১৮) হত্যা এবং বাবা মোড়ল মোস্তফা কামালকে (৫১) আত্মহননে প্ররোচনা দেওয়ার ঘটনায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহতের শ্যালক শেখ ফারুক আহমেদ বাদী হয়ে বুধবার রাতে খুলনা সদর থানায় মামলা দুটি দায়ের করেন। এর মধ্যে একটি অপমৃত্যু এবং অপরটিতে হত্যাকাণ্ডে প্ররোচনার অভিযোগ আনা হয়েছে।

হত্যা মামলায় খুলনার পরমাণু শক্তি কমিশনের আওতাধীন ইনস্টিটিউট অব নিউক্লিয়ার মেডিসিন অ্যান্ড অ্যালাইড সাইন্সেস-ইনমাস’র পরিচালক ডা. অশোক কুমার পালকে আসামি করা হয়েছে।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম জানান, আত্মহননের ঘটনায় অপমৃত্যু এবং হত্যাকা-ে প্ররোচনার ঘটনায় হত্যা মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিকে নিহত মোস্তফা কামাল ও তার মেয়ের লাশ পোস্টমর্টেম শেষে গ্রামের বাড়ি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার আট্টাকা গ্রামে নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার সকাল সোয়া ১১টার দিকে পুলিশ নগরীর আহসান আহমেদ রোডের ৮ নম্বর বাড়ির নিচতলার বেডরুম থেকে মোড়ল মোস্তফা কামাল (৫১) ও তার প্রতিবন্ধী মেয়ে সুমাইয়া আক্তার অরিনের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় মোস্তফা কামালের লাশ রশি বাঁধা অবস্থায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছিল এবং তার মেয়ে অরিনের লাশ বিছানায় শোয়ানো অবস্থায় ছিল। নিহত মোস্তফা কামাল ইনমাস’র খুলনাস্থ পরমাণু শক্তি কমিশনের হিসাবরক্ষক পদে কর্মরত ছিলেন। তাদের মৃত্যুর জন্য খুলনাস্থ বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের প্রধান ডা. অশোক কুমার পালকে দায়ী করে তিনি একটি চিরকুট লিখে গেছেন।

Share.

Leave A Reply

13 + fourteen =